বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক হলেন সাকিব আল হাসান

বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক হলেন সাকিব আল হাসান

বাংলাদেশের নতুন টেস্ট অধিনায়ক নির্বাচিত হয়েছেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। মুমিনুল হকের ব্যাটিংয়ে মনোনিবেশ করার জন্য পদ থেকে সরে যাওয়ার সাম্প্রতিক সিদ্ধান্তের পর বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড সাকিবকে পুনরায় নিয়োগ দিয়েছে। লিটন দাসকে ডেপুটি হিসেবে রাখা হয়েছে।

ঘটনাচক্রে, দুর্নীতির অভিযোগ জানাতে ব্যর্থতার জন্য সাকিবের উপর আইসিসির নিষেধাজ্ঞার পরে মুমিনুলকে 2019 সালে অধিনায়ক মনোনীত করা হয়েছিল। তার মেয়াদে মুমিনুল দলকে তিনটি টেস্ট জয়ে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন – নিউজিল্যান্ডে ঐতিহাসিক একটি জয়, দুটি ড্র এবং 17 ম্যাচে 12টি পরাজয় ।

টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে সাকিবের আগের দুটি মেয়াদ ছিল, যে সময়ে দলটি 14 ম্যাচে তিনটি জিতেছে এবং 11টিতে হেরেছে। 2009 সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজে মাশরাফি মুর্তজা ইনজুরিতে পড়লে তিনি প্রথমবারের মতন টেস্ট অধিনায়ক নিযুক্ত হন। এরপর 2017 সালে মুশফিকুর রহিমের পরিবর্তে তাকে শাসনভার দেওয়া হয়।

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। তিনি বলেন তাদের তালিকায় তিনটি নাম ছি। সাকিব দায়িত্ব না নেওয়ার কথা বললে অন্য দুটিকে বেছে নিতেন। তিনি নিশ্চিত নন যে সাকিব নেতৃত্বে কতদিন থাকবেন, তবে বলেন যে বাংলাদেশের সেরা অলরাউন্ডার সমস্ত ফরমেটে খেলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

“ওয়েস্ট ইন্ডিজের পর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আমাদের একটি সিরিজ আছে। সে সেখানে নাও থাকতে পারে। এর বাইরে, সে আমাদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে যে সে ভবিষ্যতে সব সিরিজে, সব ফরম্যাটেই খেলবে, তবে সাকিব কতদিন নেতৃত্ব দেবে তা বলা কঠিন।” – তিনি বলেন।

“আমাদের হাতে তিনটি নাম ছিল। সাকিব আগ্রহী না হলে আমরা তিনটি বিকল্প থেকে দুজনের যে কাওকে বেছে নিতাম।”

Leave a Comment

%d bloggers like this: