নবীদের সম্পর্কে চলচ্চিত্র করা কি জায়েজ?

দ্বীনের আলেমগণ এবং পবিত্র শরীয়তের মুফতিগণ নিম্নোক্ত বিষয় সম্পর্কে কী বলেন: আজকাল মানুষ টিভি, চলচ্চিত্র, ভিডিও ইত্যাদি থেকে সবকিছুই শিখে থাকে, তাই তাদের বরকতময় জীবন সম্পর্কে জানার জন্য নবীদের সম্পর্কে চলচ্চিত্র করা কি জায়েজ?



নবী-রাসূল-( صلى الله عليه وآله وسلم) যার উপর অগণিত শান্তি ও রহমত বর্ষিত হোক–এর মধ্য থেকে চরিত্র তৈরি করা (to make characters out of the Noble Prophets) একটি পাপ এবং নাজায়েজ । এবং এটিকে নাটক ও সিনেমার আকারে উপস্থাপন করা, এবং এই ধরনের জিনিস দেখা থেকে বিরত থাকা উচিত কারণ অনেকগুলি মিথ্যা অংশ রয়েছে।


গল্পটিকে আরও বিনোদনমূলক করার জন্য আশীর্বাদপ্রাপ্ত নবীদের – (অগণিত শান্তি ও রহমত বর্ষিত হোক) চরিত্রগুলির সাথে যুক্ত করা হয় যা উপযুক্ত বা যোগ্য নয় । কখনও কখনও, এই ধরনের চরিত্রগুলি এমন বিবৃতি উচ্চারণ করে যা – মহান আল্লাহ নিষেধ করেন (such statements which – Allah forbid)– স্পষ্টতই মহানবীদের (অগণিত শান্তি ও রহমত বর্ষিত হোক) বিরুদ্ধে নিন্দাজনক এবং অবমাননাকর ।


অধিকন্তু, উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে নবী-রাসূলদের অসম্মান করা কুফর এবং ইসলাম এমন প্রচার ও প্রচারের অনুমতি দেয় না যাতে প্রচারকের নিজের কুফরী হওয়ার আশঙ্কা থাকে। এই কারণেই এই ধরনের সিনেমা ফিল্ম করা, দেখা বা দেখানো কঠোরভাবে নাজায়েজ; মুসলমানদের অবশ্যই এ থেকে সম্পূর্ণভাবে বিরত থাকতে হবে।


প্রকৃতপক্ষে, মুসলিম সরকারগুলির উপর এই ধরনের চলচ্চিত্র বন্ধ করা এবং মানুষকে এটি থেকে বিরত রাখাও ফরজ [একটি ধর্মীয় বাধ্যবাধকতা]। মহানবীদের সম্মান করা – যাঁর উপর শান্তি ও আশীর্বাদ রয়েছে – ফরজ এবং অসম্মানের ক্ষুদ্রতম রূপ বা পরিমাণ কুফর, যেমনটি আল-শিফা আল-শরীফ-এ বলা হয়েছে,


“اعلم وفقنا الله وإياك أن جميع من سب النبي صلى الله عليه وسلم أو عابه أو ألحق به نقصا في نفسه أو نسبه أو دينه أو خصلة من خصاله أو عرض به أو شبهة بشئ على طريق السب له أو الإزراء عليه أو التصغير لشأنه أو الغض منه والعيب له فهو ساب له والحكم فيه حكم الساب يقتل كما نبينه ولا نستثني فصلا من فصول هذا الباب على هذا المقصد ولا يمترى فيه تصريحا كان أو تلويحا وكذلك من لعنه أو دعا عليه أو تمنى مضرة له أو نسب إليه ما لا يليق بمنصبه على طريق الذم أو عبث في جهته العزيزة بسخف من الكلام وهجر ومنكر من القول وزور أو عيره بشئ مما جرى من البلاء والمحنة عليه أو غمصه ببعض العوارض البشرية الجائزة والمعهودة لديه وهذا كله إجماع من العلماء وأئمة الفتوى من لدن الصحابة رضوان الله عليهم إلى هلم جرا”

[al-Shifā bi Ta’rīf Huqūq al-Mustafā, vol. 2, p. 214]

واللہ تعالی اعلم ورسولہ اعلم صلی اللہ علیہ وآلہ وسلم
کتبہ ابو الحسن محمد قاسم ضیاء قادری

Answered by Mufti Qasim Zia al-Qadri
Translated by Haider Ali Madani

Leave a Comment

%d bloggers like this: